ডিমলায় সয়াবিন তেল অবৈধ মজুদ করায় জরিমানা

ছায়াপথ ডেস্ক:  নীলফামারীর ডিমলায় গোডাউনে অবৈধভাবে সয়াবিন তেল মজুদ করে তেলের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করার দায়ে বাবুরহাট বাজারের নুপুর স্টোরের মালিক  সাইফুল ইসলামকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন টিম। সেই সঙ্গে দুই তিন দিনের মধ্যে মজুদ করা প্রায় ৭ হাজার লিটার সয়াবিন তেল সরকার ঘোষিত ন্যায্য মূল্যে বিক্রয় করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

বুধবার বিকালে ডিমলা সরকারী  হাসপাতাল মোড়ে সাইফুলের বাড়ি  থেকে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নীলফামারীর বাজার তদারকি টিম অবৈধভাবে মজুদ করা প্রায় ৭ হাজার লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার করেন।জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নীলফামারীর সহকারী পরিচালক সামসুল আলম ও কৃষি বিপনন অফিসার এটিএম এরশাদ আলম খান ডিমলা থানা-পুলিশের সহযোগি়তায় এ অভিযান পরিচালনা করেন।

এলাকাবাসীরা জানান, নুপুর স্টোরের মালিক তার দোকানে মাত্র কয়েকটি করে তেলের বোতল রেখে বেশ কিছুদিন থেকে বেশি মূল্যে তেল বিক্রি করে আসছে। তার দোকানে তেল কিনতে গেলেই বলে তেল নাই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ক্রেতা জানান, ১৬০ টাকা মুল্যের তেল তার দোকান থেকে প্রায় ২০০ টাকা দিয়ে কিনতে হচ্ছে।জেলা কৃষি বিপণন অফিসার এটিএম এরশাদ আলম জানান, দোকানে অল্পসংখ্যক তেলের বোতল রেখে দোকানমালিক তার বাড়ি ও গোডাউনে তেল মজুদ করে রেখেছিলো। আমরা সেই সব মজুদকৃত তেল উদ্ধার করি এবং অবৈধভাবে তেল মজুদের অপরাধে ২০০৯ সালের ভোক্তা অধিকার আইনের ৪৫ ধারায় তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।