বালিশের খোল (কবিতা)

মাহাবুব হোসেন :

মেয়ে এখন বালিশ ভিজে নালিশ করে
হয়েছে গন্ডগোল
জামাইর ভিতর তুলা নাই
আছে শুধু খোল।

চাকরি নাই বাকরি নাই
রুটির বেকারি
সেটাও নাকি চইলা গেছে
ব্যবসা দুই নম্বরি।

জামাই এখন ইয়াবড়
ইয়াবার ব্যবসায়ী
এই কথা শুইনা মেয়ে
হইছে শয্যাশায়ি।

জামাইর অনেক গল্প শুনে
বাবায় দিল বিয়া
ভিটে মাটি বিক্রি করে
লক্ষ্য টাকা দিয়া।

বাবা জানে জামাই করে
বড় একখান চাকরি
এখন শুনে জামাই নাকি
মস্ত চোরা কারবারি।

মাথায় হাত দিয়া বাবা
কান্দে বারেবার
চাকরি নাই বাকরি নাই
জামাই বাবু পুর্ণ বেকার।

শ্বশুর মশাই কেঁদে বলে
বাবাজি, এসব কি তোমার কারবারি
জামাই বাবু হেসে বলে
আব্বা হুজুর, এটাই আমার চাকরি।

মেয়ে এখন বালিশ ভিজে
চোখ মুখ ফুলে ঢোল
জামাইর ভিতর তুলা নাই
আছে শুধু খোল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।