শওকত জামানের কবিতা ‘নারী’

আমি নারী

মানুষ নই কি আমি

নারী তুই মানুষ হবি কবে?

প্রশ্নটির পিছু ঘুরছি

হাজার বছর ধরে।

গাইছি নিয়তির শিকল ভাঙার গান

নেই আমার মন প্রাণ।

আর কত শুনবো,

তুমি নারী, মহিলা তুমি মেয়ে মানুষ

মানুষ নও, অর্ধ মানুষ

এটা করা যাবে না, ওটা ছোঁয়া যাবে না, ধরা যাবে না মুক্ত বিহঙ্গ

পরাধীনতাই আমার সঙ্গ।

সমাজ সংসার ধর্মে

অধিকার খর্ব শাসন শোষণে

গলায় পেঁচিয়ে দিয়েছো নিয়ম নিয়তির দড়ি

বাড়ির চার দেয়ালে রেখেছো আমায় বন্দি,

বারো হাত কাপড়ে আপদমস্তক ঘোমটা পড়িয়ে

কথা বলো না উচ্চ স্বরে

এই ছিলকি আমার জন্মের সন্ধি?

শৈশব কৈশরে বাবা মা, যৌবনে স্বামী

বার্ধক্যে ছেলেমেয়ের শাসন অনুশাসন

দিতে হবে সপে

জীবনের সব সিদ্ধান্ত।

নিয়ম কানুনের ফিরিস্তি

যতসব আমার বেলায়

নিয়মের দানবাক্স আমি।

ঘরে রাখিয়াছো কোণে ব্যাঙ করে

বাহিরে বানিয়াছো পণ্য,

আমার সুধা পানে হও তুমি ধণ্য

বিয়ে করেছো কি

গৃহস্তলির কাজ আর শুধুই বংশবিস্তারের জন্য?

বাক স্বাধীনতা দেখেনি কখনো

তাই, নিজের কথা বলতে পারি না নিজে

স্বাধীনতা নামের সোনার হরিনটি

খুঁজে পাবো আমি কবে?

আমি নারী…

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।